ওসামা বিন লাদেন মার্কিন অভিযানে নিহত

BD-ws
ভাল লাগলে শেয়ার করুন সবার সাথে

মার্কিন বিশেষ বাহিনী পাকিস্তানের ভেতরে অভিযান চালিয়ে আল কায়দার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা করেছে৻

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা নিজেই হোয়াইট হাউজে এ খবর ঘোষণা করেছেন৻

গোয়েন্দা সংস্থার খবরের ভিত্তিতে এই অভিযান পরিচালিত হয়৻ কর্মকর্তারা বলছেন, গত অগাস্ট মাসে ওসামা বিন লাদেনের অবস্থানের বিষয়ে খোঁজ পাওয়া গিয়েছিলো৻

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলছেন যে, কেন্দ্রীয় গুপ্তচর সংস্থা সিআইএ রাজধানী ইসলামাবাদের উত্তরে অ্যাবোটাবাদে উচু প্রাচীরের একটি বাড়িতে ওসামা বিন লাদেনের অবস্থান নিশ্চিত করে৻

তারা জানায় যে সন্ত্রাসবিরোধী সামরিক বিভাগের বিশেষ বাহিনীর সৈন্যরা চারটি হেলিকপ্টারে করে এই বাড়িতে গিয়ে অভিযান পরিচালনা করে৻

এই অভিযানে অন্তত তিনজন নিহত হয়৻ খবরে বলা হচ্ছে, ওসামা বিন লাদেন মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন৻

ওসামা

ওসামা : অবশেষে আমেরিকার হাতেই মৃত্যু

এই অভিযানের সময় তার একজন ছেলেও নিহত হয়েছে৻

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন যে এই অভিযানের সময় একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে৻

মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন যে আল কায়দা নেতাকে পরে সমুদ্রে সমাহিত করা হয়েছে৻

ওসামা বিন লাদেনের এই মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে হাজার হাজার মার্কিন নাগরিক আনন্দ উল্লাস প্রকাশ করতে শুরু করে৻

তারা হোয়াইট হাউজ ও গ্রাউন্ড জিরোর সামনে সমবেত হয় যেখানে ১০ বছর আগে টুইন টাওয়ারে আল কায়দার পরিচালিত হামলায় প্রায় তিন হাজার মানুষ প্রাণ হারায়৻

তারা নেচে গেয়ে আনন্দ করতে থাকে, জাতীয় সঙ্গীত গায় এবং যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা উড়াতে থাকে৻

যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য স্থানেও এই একই রকমের প্রতিক্রিয়া হয়েছে৻

প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেছেন, শেষ পর্যন্ত বিচার সম্পন্ন হলো৻

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ, টুইন টাওয়ারে হামলার সময় যিনি প্রেসিডেন্ট ছিলেন, ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা করার ঘটনা এক অসাধারণ অর্জন৻

ব্রিটেন, ফ্রান্স এই অভিযানের প্রশংসা করেছে৻ বলেছে, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এটা একটা বড়ো ঘটনা৻

তবে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন সতর্ক করে দিয়ে দিয়েছেন এর মধ্য দিয়ে চরমপন্থীদের হুমকি শেষ হয়ে যায়নি৻

নিরাপত্তা জোরদার

রাশিয়াও ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা করাকে মাইলফলক ঘটনা হিসেবে অভিহিত করেছে৻

টুইন টাওয়ারে আল কায়দার হামলায় প্রায় ৩০০০ মানুষ নিহত হয়

পাকিস্তান বলেছে, সারা বিশ্বের সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর জন্যে এটা একটা বড় ধরনের ধাক্কা৻

আফগান প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই বলেছেন, এর মধ্য দিয়ে কাবুলের দীর্ঘদিনের অবস্থানই প্রমাণিত হলো৻ কাবুল বলে আসছিলো যে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের শেকড় শুধুমাত্র আফগানিস্তানেই প্রোথিত নয়৻

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি. চিদাম্বরাম বলছেন, ওসামা বিন লাদেনকে যে ইসলামাবাদের ৬০ কিলোমিটারের মধ্যে পাওয়া গেলো সেটা একটা উদ্বেগের কারণ, যার অর্থ সন্ত্রাসীদের জন্যে পাকিস্তান অভয়ারন্য হয়ে উঠতে পারে৻

আল কায়দা নেতা পাকিস্তানে লুকিয়ে আছে এই দাবী ইসলামাবাদের তরফে সবসময় অস্বীকার করা হয়েছে৻

এই খবরের পরপরই আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোল বাড়তি নিরাপত্তার ওপর জোর দিয়েছে৻

সংস্থাটি বলছে, ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আল কায়দার ক্ষমতা নিঃশ্বেষ হয়ে যায়নি৻

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগ বলেছেন যে তিনি সারা বিশ্বের ব্রিটিশ দূতাবাসগুলোতে নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন৻ মার্কিন দূতাবাসগুলোতেও নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়েছে৻

ভাল লাগলে শেয়ার করুন সবার সাথে

Related posts

Leave a Reply